সংবাদ

মাহফিলে মীলাদুন্নবীতে আল্লামা মুফতী গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী ফুলতলী

হযরত মুহাম্মদ (সা.) আল্লাহর সর্বোত্তম নিদর্শন

বাংলাদেশ আনজুমানে আল ইসলাহর স্থায়ী কমিটির সদস্য, শামসুল উলামা হযরত আল্লামা ফুলতলী ছাহেব কিবলাহ (র.)’র সুযোগ্য ছাহেবজাদা আল্লামা মুফতী গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী ফুলতলী বলেছেন, প্রিয়নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে আল্লাহ তাআলা কুল কায়েনাতের জন্য প্রেরণ করেছেন। তিনি সৃষ্টিজগতের জন্য আল্লাহর রহমত ও নিয়ামত। এ নিয়ামতের শুকরিয়া আদায় করা আমাদের জন্য কর্তব্য। প্রিয়নবী (সা.)-এর আলোচনার মাধ্যমে এ শুকরিয়া আদায় হয় এবং তাঁর প্রতি মহব্বত বৃদ্ধি পায়। আল্লাহ তাআলা তদীয় নিদর্শনসমূহের তা’যীমকে ‘অন্তরের তাকওয়া’ বলে উল্লেখ করেছেন আর হযরত শাহ ওয়ালীউল্লাহ মুহাদ্দিসে দেহলভী (র.) লিখেছেন, আল্লাহর নিদর্শনসমূহের মধ্যে সর্বোত্তম নিদর্শন হলেন হযরত মুহাম্মদ (সা.)। সুতরাং তাঁর প্রতি সম্মান-মর্যাদা প্রদর্শন মুমিনদের তাকওয়ার গুণে বিভূষিত করে। তিনি গতকাল শনিবার (০৯.১১.২০১৯) বাংলাদেশ আনজুমানে আল ইসলাহ’র উদ্যোগে সোবহানীঘাটস্থ হাজী নওয়াব আলী জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত ‘মাহফিলে মীলাদুন্নবী’তে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সংগঠনের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সোবহানীঘাট হযরত শাহজালাল দারুচ্ছুন্নাহ ইয়াকুবিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা কমরুদ্দীন চৌধুরী ফুলতলী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাহফিলে বক্তব্য রাখেন সৎপুর দারুল হাদীস কামিল মাদরাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা ছালিক আহমদ ও বিশিষ্ট আলিমে দ্বীন মাওলানা মুজিবুর রহমান ভাদেশ্বরী।

মাহফিলের প্রথম অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মাহফিল বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক অধ্যক্ষ মাওলানা মঈনুল ইসলাম পারভেজ। বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব মাওলানা আজির উদ্দিন পাশা’র পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন আনজুমানে আল ইসলাহ’র মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা একেএম মনোওর আলী, কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা ছরওয়ারে জাহান, বিশিষ্ট আইনজীবি এডভোকেট মাওলানা আব্দুর রকিব, আল ইসলাহ’র কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মাহমুদ হাসান চৌধুরী, অর্থ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ মাওলানা আবূ ছালেহ মুহাম্মদ কুতবুল আলম, রাখালগঞ্জ সিনিয়র মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা হবিবুর রহমান, সিলেট সরকারী আলিয়া মাদরাসার অধ্যাপক মাওলানা আব্দুল মুছাব্বির, আনজুমানে আল ইসলাহর কেন্দ্রীয় সহ প্রচার সম্পাদক মাওলানা কাজী হাসান আলী, পাঠাগার সম্পাদক নজীর আহমদ হেলাল, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাওলানা বেলাল আহমদ, অফিস সম্পাদক মাওলানা আতাউর রহমান, তালামীযে ইসলামিয়ার কেন্দ্রীয় সভাপতি আখতার হোসাইন জাহেদ, সহ সভাপতি দুলাল আহমদ, মুহাম্মদ মুহিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ূনুর রহমান লেখন ও সাংগঠনিক সম্পাদক, র‌্যালী বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক মোজতবা হাসান চৌধুরী নোমান।

মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আনজুমানে আল ইসলাহ’র কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট মহানগর সভাপতি আলহাজ্জ মো. শাহজাহান মিয়া, কেন্দ্রীয় সদস্য মো. আলমগীর হোসেন, মো. নুরুল ইসলাম চৌধুরী, মাওলানা জইন উদ্দিন, সোবহানীঘাট হযরত শাহজালাল দারুচ্ছুন্নাহ ইয়াকুবিয়া কামিল মাদরাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা রেদাউল করীম, মাওলানা আজিজুর রহমান, আল ইসলাহ সিলেট মহানগরী সহ সভাপতি হাফিয নোমান আহমদ, মাওলানা এমাদ উদ্দিন, সিলেট জেলা সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ছালেহ আহমদ, সুনামগঞ্জ জেলা সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মাহবুবুর রহমান তাজুল, তালামীযে ইসলামিয়ার কেন্দ্রীয় সহ অফিস সম্পাদক তৌরিছ আলী, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাহবুুবুর রহমান ফরহাদ, সিলেট মহানগর আল ইসলাহর সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ফয়জুল হক, মহানগর সদস্য মাওলানা কাজী জয়নুল ইসলাম মুনিম,মাওলানা নুর উদ্দিন প্রমুখ।

মাহফিলের শুরুতে কুরআন তিলাওয়াত করেন হাফিয বিলাল আহমদ। নাতে রাসূল (সা.) পরিবেশন করেন বিশিষ্ট ইসলামী সঙ্গীতশিল্পী সুলতান আহমদ ও মামুনুর রশিদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *