সংবাদ

খালিস নিয়তে সামান্য কাজ করলেও অধিক ফায়দা হয় -আল্লামা ইমাদ উদ্দিন চৌধুরী ফুলতলী

লতিফিয়া হিফযুল কুরআন মাদরাসা সিলেট এর উদ্যোগে খানেকা মাহফিল

উস্তাযুল উলামা ওয়াল মুহাদ্দিসীন, মুরশিদে বরহক হযরত আল্লামা ইমাদ উদ্দিন চৌধুরী বড় ছাহেব কিবলাহ ফুলতলী বলেছেন, প্রত্যেক কাজের ক্ষেত্রে নিয়ত মূল বিষয়। খালিস নিয়তে সামান্য কাজ করলেও তাতে অধিক ফায়দা হয়। কারো কোনো বড় কাজের চেয়ে নিয়তের বিশুদ্ধতার কারণে কারো কারো ছোট কাজেরও মূল্য আল্লাহর কাছে বেশি হতে পারে। আল্লাহ তা বহুগুণ বাড়িয়ে দিতে পারেন। তিনি হাদীসে নববীর প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, কেউ যদি হালাল উপার্জন থেকে একটি খেজুর পরিমাণও আল্লাহর ওয়াস্তে দান করেন তবে আল্লাহ তা বাড়াতে থাকেন। কিয়ামতের দিন তা বিশাল পাহাড় পরিমাণ হয়ে যায়। হাফিযে কুরআনদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, যাদের আল্লাহ তাআলা হিফযের দৌলত দান করেছেন তাদের মাতাপিতা ধন্য, সৌভাগ্যবান। তাদের মাতাপিতা এ আশা নিয়ে দুনিয়া থেকে বিদায় নিবেন যে, তাদের সন্তান হাশরের ময়দানে কাজে আসবে। কুরআন হিফয করা অত্যন্ত বড় বিষয়। যারা কুরআন শরীফ হিফয করেছেন তা হেফাযতে রাখবেন। তিনি বৃহস্পতিবার (১৯.১২.২০১৯) দিবাগত রাতে পাঠানটুলাস্থ আমানী কনভেনশন সেন্টারে লতিফিয়া হিফযুল কুরআন মাদরাসা সিলেট কর্তৃক আয়োজিত খানকা মাহফিলে তা’লিম তরবিয়ত প্রদানকালে এসব কথা বলেন।
মাদরাসা পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মাওলানা মাহমুদ হাসান চৌধুরী’র সভাপতিত্বে এবং প্রিন্সিপাল মাওলানা নজীর আহমদ হেলাল ও মাওলানা মুহিবুর রহমানের যৌথ পরিচালনায় মাহফিলে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আনজুমানে আল ইসলাহ’র মুহতারাম সভাপতি হযরত মাওলানা হুছামুদ্দীন চৌধুরী ফুলতলী।

সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন সৎপুর দারুল হাদীস কামিল মাদরাসার সাবেক প্রিন্সিপাল মাওলানা শফিকুর রহমান, জালালপুর জালালিয়া কামিল মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা জ উ ম আব্দুল মুনঈম ও মাওলানা আজিজুর রহমান ধনপুরী।
মাহফিলের প্রথম অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন মাদরাসা পরিচালনা পর্ষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা নজমুল হুদা খান।

এতে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আনজুমানে আল ইসলাহ’র সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা ছরওয়ারে জাহান, সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ মাওলানা মঈনুল ইসলাম পারভেজ, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাওলানা আজির উদ্দিন পাশা, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাওলানা বেলাল আহমদ, অফিস সম্পাদক মাওলানা আতাউর রহমান, তালামীযে ইসলামিয়ার কেন্দ্রীয় সভাপতি আখতার হোসাইন জাহেদ, সহ সভাপতি দুলাল আহমদ, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ূনুর রহমান লেখন, সহ সাধারণ সম্পাদক উসমান গনী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোজতবা হাসান চৌধুরী নোমান, সোনাতল সিরাজুল ইসলাম আলিম মাদরাসার সাবেক প্রিন্সিপাল মাওলানা হাফিজুর রহমান, হাউসা আলিম মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আজিজ আহমদ, বাদেদেওরাইল ফুলতলী কামিল (এম.এ) মাদরাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা হবিবুর রহমান, নাজমুল হক মদীনাতুল উলূম কামিল মাদরাসা ঢাকা’র সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মাহবুবুল্লাহ, হযরত শাহজালাল দারুচ্ছুন্নাহ ইয়াকুবিয়া কামিল মাদরাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা ইউনুছ আহমদ, সিলেট জেলা ব্যবসায়ী ঐক্যকল্যাণ পরিষদের সভাপতি আলহাজ শেখ মকন মিয়া, ছাতক জালালিয়া ফাযিল মাদরাসার আরবী প্রভাষক মাওলানা আলী আসগর খান, সোনাতলা সিনিয়র মাদরাসার আরবী প্রভাষক মাওলানা নুরুল হক, লতিফিয়া কারী সোসাইটি সিলেট মহানগর শাখার সেক্রেটারি মাওলানা সৈয়দ কুতবুল আলম, বাহুবল উপজেলা সভাপতি মাওলানা আব্দুল হান্নান সিদ্দিকী, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান, উত্তর ফেঞ্চুগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান এমরান উদ্দিন, বায়তুল মামুর জামে মসজিদের ইমাম ও খতীব মাওলানা জামিল আহমদ, লন্ডন প্রবাসী মাওলানা আব্দুল মজিদ, আকাখাজনা দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা মোদ্দাচ্ছির আলী, ফেঞ্চুগঞ্জ মোহাম্মাদিয়া কামিল মাদরাসার আরবী প্রভাষক মাওলানা আবূ বকর মুহাম্মদ নূরী, কামালবাজার আলিম মাদরাসার আরবী প্রভাষক মাওলানা আফজল খান সিরাজী, তালামীযে ইসলামিয়ার কেন্দ্রীয় অফিস সম্পাদক আব্দুল মুহিত রাসেল, সহ অফিস সম্পাদক তৌরিছ আলী, প্রশিক্ষণ সম্পাদক সুলতান আহমদ, শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান ফরহাদ, সহ শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক রফিকুল ইসলাম তালুকদার, আনজুমানে আল ইসলাহ’র কেন্দ্রীয় সদস্য মাওলানা জইন উদ্দিন ও সিলেট মহানগরী সহ সভাপতি হাফিয নোমান আহমদ।
মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লতিফিয়া হিফযুল কুরআন মাদরাসা সিলেট এর উপদেষ্টা আলহাজ্জ হিরণ খান, মো. তুরণ মিয়া চৌধুরী, সুন্দর আলী জামে মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্জ মো. সুন্দর আলী, আলহাজ্জ দরাজ মিয়া, মো. আব্দুর রব, আলহাজ্জ ফারুক আহমদ, রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল হাফিযিয়া মাদরাসার প্রধান শিক্ষক হাফিয মাওলানা আব্দুল মুক্তাদির আল আজহারী, তালামীযে ইসলামিয়া সিলেট পশ্চিম জেলা সভাপতি মো. আলী হায়দার, শাবিপ্রবি সভাপতি মনজুরুল করিম মহসিন, সিলেট প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি জোনের সাধারণ সম্পাদক সুলাইমান আহমদ চৌধুরী, সিলেট পশ্চিম জেলা সাধারণ সম্পাদক কবির আহমদ, সুনামগঞ্জ জেলা সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গণি সোহাগ, সিলেট মহানগরী সাধারণ সম্পাদক এস এম মনোওয়ার হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আহমদ শরীফ, সাংগঠনিক সম্পাদক মারুফ আহমদ, এম সি কলেজ সভাপতি শুয়াইব আহমদ, সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম বাবু, লতিফিয়া হিফযুল কুরআন মাদরাসা সিলেট এর কোষাধ্যক্ষ তালিমুল ইসলাম, পরিচালনা পর্ষদের সদস্য মাওলানা তরীকুল ইসলাম, মাওলানা এনাম উদ্দিন আহমদ, সৈয়দ মনজুর আলী, মো. ফরহাদ খান, হাফিয পিয়ার হাসান, কারী শামসুদ্দীন আহমদ, মাওলানা আব্দুল লতিফ খালেদ, মাওলানা আব্দুল মালিক, মাওলানা ইমরান আহমদ, দি কুরআনিক হোম সিলেট এর প্রধান শিক্ষক হাফিয মাওলানা আব্দুল মুকিত, ইয়াকুুবিয়া হিফযুল কুরআন মাদরাসা ধারণ এর প্রধান শিক্ষক হাফিয আব্দুল আজিজ, আল মদীনা হিফযুল কুরআন একাডেমি সিলেট এর প্রধান শিক্ষক হাফিয মাওলানা আলী হোসেন জাহেদ, জালালিয়া দারুল হামদ মাদরাসার প্রধান শিক্ষক হাফিয মাওলানা আব্দুল হামিদ, শষ্যউরা উমর (র.) হাফিযিয়া মাদরাসার শিক্ষক হাফিয এবাদুর রহমান, ইয়াকুবিয়া হিফযুল কুরআন মাদরাসা সিলেট এর শিক্ষক হাফিয হোসাইন আহমদ, কারী মাহফুজুর রহমান, হাফিয মুহাম্মদ নুরুল হক, লতিফিয়া হিফযুল কুরআন মাদরাসা সিলেট এর প্রধান শিক্ষক হাফিয মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম, মাওলানা মামুনুর রশিদ, হাফিয মুহাম্মদ ইসলাম উদ্দিন, হাফিয মুহাম্মদ ওলীউর রহমান প্রমুখ।

মাহফিলে হিফয সমাপনকারী দুজনকে ছাত্রকে পাগড়ী প্রদান করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *